ঢাকাশনিবার , ২২ জুলাই ২০২৩
  1. ! Without a column
  2. 1
  3. avi feb
  4. Belugabahis bahis sitesi feb
  5. blackjack-deluxe
  6. bonan feb
  7. casinomhub giris
  8. goo feb
  9. last-news
  10. mars feb
  11. Marsbahisgiris feb
  12. most feb
  13. New Post
  14. News
  15. onwin feb

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস পুকুরে, নিহত-১৭

কে এম তারেক অপু
জুলাই ২২, ২০২৩ ৬:৩৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মনবীর সোহান ॥ ঝালকাঠিতে একটি যাত্রীবাহী বাস পুকুরে পড়ে নিহত যাত্রীর সংখ্যা বেড়ে ১৭ হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন ২৫-৩০ জন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট, পুলিশ ও স্থানীয়রা। শনিবার সকাল ১০টায় সদর উপজেলার ধানসিঁড়ি ইউনিয়ন পরিষদের সামনে বরিশাল-খুলনা মহাসড়কে ঘটনাটি ঘটে। জানা গেছে, ভান্ডারিয়া থেকে বরিশাল যাওয়ার পথে বাসটি উল্টে পুকুরে পড়ে যায়। বাসটিতে আনুমানিক ৫০-৬০ জন যাত্রী ছিল। নিহতরা হলেন- দক্ষিণ ভান্ডারিয়ার পান্না বেপারীর ছেলে তারেক বেপারী (৪২), উত্তর পূর্ব ভান্ডারিয়া গ্রামের পিতা ও পুত্র ছালাম মোল্লা (৬৫) ও তার ছেলে শাহীন মোল্লা-২৫, পশারী বুনিয়া গ্রামের জালাল হাওলাদার এর মেয়ে সুমাইয়া (৬), পূর্ব ধাওয়া (পোদ্দার খাল) মা ও ছেলে রহিমা বেগম (৭০) এবং আবুল কালাম হাওলাদার (৫০), উত্তর শিয়ালকাঠী গ্রামের ফজলুল হক মৃধার স্ত্রী রাবেয়া বেগম (৭৫) ও তেলিখালী গ্রামের রাসেল সিকদার এর স্ত্রী সাদিয়া আক্তার (২৪)। নিহত অন্যরা হচ্ছে রাজাপুরের খাদিজা বেগম (৪৩), খুশবু আক্তার (১৭), মো. নয়ন (১৬) বাকেরগঞ্জের আব্দুল্লাহ (৮), মেহেন্দিগঞ্জের মা আইরিন আক্তার ও মেয়ে রিপা মনি (২), কাঠালিয়ার সালমা আক্তার মিতা (৪২)। নিহতদের মধ্যে আটজন নারী, ছয়জন পুরুষ ও তিনজন শিশু। ঘটনার পর ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ভিড় জমিয়েছেন হতাহতদের স্বজনরা। গোটা হাসপাতাল চত্বর তাদের আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকালে ভান্ডারিয়া থেকে বাশার স্মৃতি পরিবহন নামে একটি যাত্রীবাহী বাস ঝালকাঠির দিকে যাচ্ছিল। পথে ছত্রকান্দা এলাকায় পৌঁছে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের একটি পুকুরে পড়ে উল্টে যায়। তাৎক্ষণিকভাবে স্থানীয়রা উদ্ধার কাজ শুরু করেন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশের সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উদ্ধার কাজে যোগ দেয়। ঝালকাঠি ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক ফিরোজ কুতুবী তাদের দলের উদ্ধার অভিযানের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। হাসপাতালে ভর্তি আহতদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মাঝপথে যাত্রী তোলার কারণে নির্ধারিত সময়ের চেয়ে বেশি সময় লাগে। কম সময় ব্যয়ের জন্য চালক বাসটি বেপরোয়া গতিতে চালাচ্ছিল। কিছু বুঝে ওঠার আগেই বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশের পুকুরে পড়ে যায়। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসির উদ্দিন সরকার ১৭ যাত্রীর মরদেহ উদ্ধারের তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি আরও বলেন, হাসপাতালে ভর্তি আহতদের মধ্যে কজন মুমূর্ষু অবস্থায় আছেন। গাড়ির ভেতরে কতজন আটকে আছে তা ধারণা করা যাচ্ছে না। বাসটি উদ্ধারের পর বিস্তারিত বলা যাবে। ঝালকাঠী সিভিল সার্জন ডা. এইচএম জহিরুল ইসলাম জানান, এখন পর্যন্ত ১৭ জন মারা গেছে। এদের মধ্যে ৮ জনের বাড়ি ভান্ডারিয়ায়। এছাড়া রাজাপুরের ২জন, কাঠালিয়ার একজন, বাকেরগঞ্জের একজন, মেহেন্দিগঞ্জের ২ জন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার সীমা রানী ধর জানান, নিহত প্রত্যেক পরিবারকে দাফন কাপনের জন্য পিরোজপুর জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে সরকারিভাবে ১০ হাজার টাকার অনুদান প্রদান করা হয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।