ঢাকারবিবার , ১৮ জুন ২০২৩
  1. ! Without a column
  2. 1
  3. avi feb
  4. Belugabahis bahis sitesi feb
  5. blackjack-deluxe
  6. bonan feb
  7. casinomhub giris
  8. goo feb
  9. last-news
  10. mars feb
  11. Marsbahisgiris feb
  12. most feb
  13. New Post
  14. News
  15. onwin feb

আগৈলঝাড়ায় মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পরীক্ষার নামে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ

কে এম তারেক অপু
জুন ১৮, ২০২৩ ৩:২৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সমাচার প্রতিবেদক, আগৈলঝাড়া ॥ বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার বাশাইল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পরীক্ষার নামে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে। অতিরিক্ত টাকা নেওয়ায় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। এব্যাপারে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকের পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে।
শিক্ষার্থী ও অভিভাবক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার রাজিহার ইউনিয়নের বাশাইল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রথম সাময়িক পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে টাকা আদায় করা হচ্ছে। ওই বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ থেকে ১০ শ্রেনী পর্যন্ত প্রায় ৫ শতাধিক পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা আদায় করছে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তারা ৬ষ্ঠ শ্রেনীতে ১হাজার টাকা, ৭ম শ্রেনীতে ১হাজার ২শত টাকা, ৮ম শ্রেনীতে ১ হাজার ৩শত টাকা, ৯ম ও দশম শ্রেনীতে ১হাজার ৫শত টাকা নির্ধারন করে তা আদায় করেছে। এতে প্রায় পরীক্ষার নামে অতিরিক্ত ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা আদায় করেছে বলে অভিযোগ করেন শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা।
নাম না প্রকাশের শর্তে একাধিক অভিভাবকরা বলেন, এই সময়ে পরীক্ষার নামে এত টাকা ধরায় আমাদের দিতে সমস্যায় পরতে হচ্ছে। কমানোর কথা বললেও তারা কম নেয়নি এবং টাকার কোন রিসিভ দেওয়া হচ্ছে না।
এব্যাপারে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নুরুল হক মিয়া টাকা নেওয়ার সত্যাতা স্বীকার করে বলেন, অন্যান্য বিদ্যালয় থেকে আমরা অনেক কম টাকা নিচ্ছি। শিক্ষক সমিতি ও ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক এই টাকা ধার্য করা হয়েছে। টাকা নেওয়ার রিসিভ পরবর্তীতে দেওয়া হবে।
এ বিষয়ে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি এনায়েত হোসেন নান্নু বলেন, এই টাকা ধরার ব্যাপারে আমার তেমন কিছু জানা নেই। শুনেছি অন্য বিদ্যালয়ের সাথে মিল রেখে টাকা নেওয়া হচ্ছে।
উপজেলা শিক্ষক সমিতির সভাপতি সুনীল কুমার বাড়ৈ বলেন, সরকারী প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। টাকা নিলে তার রিসিভ দেওয়ার নিয়ম রয়েছে।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মাহাবুবুর রহমান বলেন, অন্য অন্য বিদ্যালয় থেকে বাশাইল মাধ্যমিক বিদ্যালয় বেশী টাকা নিচ্ছে। এব্যাপারে আগামী মঙ্গলবার তাদের আমার অফিসে ডাকা হয়েছে। রিসিভ ছাড়া কোন টাকা নেওয়ার এখতিয়ার নেই তাদের।
এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাখাওয়াত হোসেন বলেন, অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার ব্যাপারে তদন্ত করে ওই বিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।