ঢাকাসোমবার , ২৭ নভেম্বর ২০২৩
  1. 1
  2. avi feb
  3. Belugabahis bahis sitesi feb
  4. blackjack-deluxe
  5. bonan feb
  6. casinomhub giris
  7. goo feb
  8. last-news
  9. mars feb
  10. Marsbahisgiris feb
  11. New Post
  12. News
  13. polskie-kasyna
  14. আইন-আদালত
  15. আন্তর্জাতিক

লালমোহন-তজুমদ্দিনে এমপি শাওনেই ভরসা প্রধানমন্ত্রীর

কে এম তারেক অপু
নভেম্বর ২৭, ২০২৩ ৫:৪৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সমাচার প্রতিবেদক ॥ আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোলা-৩ (লালমোহন-তজুমদ্দিন) আসনে এমপি শাওনেই ভরসা রাখলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফলে চতুর্থবারের মতো বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন দ্বীপবন্ধু আলহাজ্ব নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন। রবিবার বিকেলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ভোলা-৩ (লালমোহন-তজুমদ্দিন) আসনে এমপি শাওন’র নাম ঘোষণা করেন। লালমোহন-তজুমদ্দিন উপজেলা নিয়ে গঠিত ভোলা-৩ আসন। ২০১০ সালের ২৪ এপ্রিলের উপ-নির্বাচনের মাধ্যমে এ আসন থেকে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন। এরপর থেকেই বদলে যেতে শুরু করে এ আসনের দৃশ্যপট। এমপি শাওনের জাদুকরী ছোঁয়ায় ভোলা-৩ আসনে এখন বইছে উন্নয়নের জোয়ার। এমপি শাওনের শ্রমে এগিয়ে যাচ্ছে এ আসনের উন্নয়ন-অগ্রগতি। দুই উপজেলার নেতাকর্মীদের দৃষ্টিতে ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রূপরেখা বাস্তবায়নে এমপি শাওন এক আপোষহীন সৈনিক। জানা গেছে, ভোলা-৩ (লালমোহন-তজুমদ্দিন) আসনে আওয়ামী লীগ বিগত যেকোনো সময়ের চেয়ে সুসংগঠিত ও শক্তিশালী। এক সময়ের বিএনপির ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত এ আসন থেকে নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন এমপি হওয়ার পর থেকে নৌকার পালে হাওয়া লেগেছে। তিনি ২০১০ সালে এ আসন থেকে নৌকা প্রতীক নিয়ে উপনির্বাচনে অংশগ্রহণ করে জয়লাভ করেন। এরপর থেকে এ অঞ্চলের আওয়ামী লীগ ও সাধারণ মানুষকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। উন্নয়ন অগ্রগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে এ জনপদ। নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন ২০১৪ ও ২০১৮ সালেও এ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে এমপি নির্বাচিত হন। এ সময় তার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বিএনপির সাবেক এমপি ও মন্ত্রী মেজর (অবঃ) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ (বীরবিক্রম)। এছাড়া জাতীয় পার্টি ও ইসলামি আন্দোলনের প্রার্থী ছিল। নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন এমপি এখানে অক্লান্ত পরিশ্রম করে বিএনপির দুর্গ ভেঙে গড়ে তুলেছেন আওয়ামী লীগের দুর্গ। তিনিই এখন ভোলা-৩ আসনে আওয়ামী লীগের ভরসা। সেই কারণেই দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আসনটি আবারো নিজেদের করে নিতে মাঠে নেমেছেন পরিশ্রমী বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ লালমোহন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন এমপি। দলীয় সূত্রে জানা গেছে, লালমোহন-তজুমদ্দিনে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে এমপি শাওন অত্যন্ত সফলভাবে দায়িত্ব পালন করছেন। তার নেতৃত্বে গত কয়েক বছরে এই দুই উপজেলায় সাংগঠনিকভাবে দল যেমন শক্তিশালী তেমনি ভোটাররাও আগ্রহী হয়েছে নৌকার প্রতি। যে কারণে এই দুই উপজেলায় আওয়ামী লীগের কর্মী সভাগুলো জনসভায় পরিণত হয়। তরুণ যুবকদের পাশাপাশি এলাকার নারীদের মাঝে বেড়েছে নৌকার কদর। ছাত্রজীবন থেকেই নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন বঙ্গবন্ধুর আদর্শে রাজনীতি করেন। তিনি ঢাকা সিদ্ধেশ্বরী কলেজের ভিপি ছিলেন। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে সফল দায়িত্ব পালন করেছেন। কেন্দ্রীয় যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য হয়েছেন। তৃণমূল থেকে রাজনীতি করে উঠে আসার কারণে তিনি তৃণমূলের নেতাকর্মীদের কষ্ট বোঝেন। যার কারণে তিনি ভোলা-৩ আসনের এমপি হয়ে জনপ্রিয় হয়েছেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাসহ তৃণমূল পর্যন্ত তাকেই প্রার্থী হিসেবে চেয়েছিলেন সবাই। সব মিলিয়ে দুই উপজেলায় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন পূর্বের যেকোনো সময়ের চেয়ে শক্তিশালী। নদী ভাঙন রোধ থেকে শুরু করে এখানে দৃশ্যমান অনেক উন্নয়ন হয়েছে। যার সুফল ভোগ করছে জনগণ। লালমোহন ও তজুমদ্দিন উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা জানান, এমপি আলহাজ নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন ভাইয়ের কারণে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা উজ্জীবিত। দুই উপজেলায় নৌকার পালে হাওয়া লেগেছে। তাকে আবারো মনোনয়ন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাই এ আসনে নৌকার জয় সুনিশ্চিত। এখানে এমপি শাওন’র বিকল্প নেই। এখানকার সংস্কৃতিকর্মী, ব্যবসায়ী ও বিশিষ্টজনরা বলেন, সাংগঠনিক দক্ষতা থাকার কারণে নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন এখানে পরপর তিনবার এমপি হয়েছেন। আগামী দ্বাদশ নির্বাচনে এখানে বর্তমান সাংসদ আলহাজ নুরুন্নবী চৌধুরী শাওনকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে, এবারও নৌকা মার্কা বিপুল ভোটে বিজয়ী হবে। এমপি শাওন লালমোহন পৌর শহরের ঐতিহ্যবাহী পঞ্চায়েত বাড়ির সন্তান। সে হিসেবেও স্থানীয় বাসিন্দা ও ভোটারদের মাঝে তার গ্রহণযোগ্যতা আছে। বর্তমান সাংসদ আলহাজ নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন বলেন, আমি জননেত্রী শেখ হাসিনার কর্মী। তিনি আমাকে যে দায়িত্ব দিয়ে এখানে পাঠিয়েছেন, আমি সফলভাবে দায়িত্ব পালন করেছি। আমার অসমাপ্ত কাজগুলো সমাপ্ত করতে চাই। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এ আসনটি জননেত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দিতে চাই। তিনি ভোলা-৩ আসনটি শেখ হাসিনাকে উপহার দিতে পারবেন বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করে সকলের দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেন। এদিকে, রোববার বিকেলে লালমোহন-তজুমদ্দিন আসনে এমপি শাওন’র নাম ঘোষণা হওয়ার সাথে সাথে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা আনন্দ উৎসবে মেতে উঠেন।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।